Your Website
Najmul Hossain Shanto Koto Takar Malik

নাজমুল হোসেন শান্ত কত টাকার মালিক

বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণীর একজন ক্রিকেটার নাজমুল হোসেন শান্ত ।পুরো নাম নাজমুল হোসেন শান্ত আর ডাকনাম শান্ত ।তিনি রাজশাহী জেলায় ২৫ আগস্ট ১৯৯৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন ।তার উচ্চতা ৫ ফুট ৯ ইঞ্চি ,ওজন ৬৫ কেজি এবং বর্তমান বয়স ২৪ বছর ।শান্তর জার্সি নাম্বার ৯৯ তিনি । তিনি ডান বাহু অফব্রেক ফাস্ট বোলারএবং বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান ।বর্তমানে তিনি বিবাহিত। প্রিয় ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ,শচীন টেন্ডুলকার এবং মাইক হাসি ।তিনি ক্রিকেট ছাড়াও ফুটবল খেলতে ভালোবাসেন এবং প্রিয় দল আর্জেন্টিনা প্রিয় খেলোয়াড় মেসি। বর্তমানে শান্তর মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৫ মিলিয়ন। শান্ত উঠে এসেছেন রাজশাহী জেলা থেকে।-Najmul Hossain Shanto Koto Takar Malik

তার ক্রিকেট জীবন শুরু হয় ক্লেমন রাজশাহী ক্রিকেট একাডেমি থেকে। এই ক্রিকেট একাডেমী তার বাড়ি থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে ছিল ।তিনি পায়ে হেঁটে বা সাইকেল চালিয়ে একাডেমি যেতেন ।২০১৪থেকে শান্ত রাজশাহীর অভ্যন্তরীণ ম্যাচ খেলা শুরু করেন ।অল্প বয়সেই তিনি সকলের নজরে আসতে শুরু করেন। স্কুল পর্যায়ের একটি খেলায় ডাবল সেঞ্চুরির পর তিনি আরো নজরে আসেন ।২০১৪ সালে ১৫ বছর বয়সে সাউথ আফ্রিকার অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন ।

এ ক্যাটাগরির প্লেয়ার নাজমুল হোসেন শান্তর টি-টোয়েন্টি ফরমেটে বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সেঞ্চুরির দিক থেকে সাব্বির রহমানের পরে তার অবস্থান। নাজমুল হোসেন শান্তর ক্যারিয়ার শুরু হতে থাকে ২০১৬ সালের দিকে ।২০১৬ সালে তিনি অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের মাধ্যমে সকলের কাছে পরিচিত হয়ে ওঠেন ।তিনি ২০১৭ সালে বাংলাদেশ জাতীয় দলে যোগ দেন ।তার টেস্ট অভিষেক ঘটে ২০ জানুয়ারি ২০১৭ সালে ,ওডিআই ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ এবং টি-টোয়েন্টি অভিষেক ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে।

পেশা ক্রিকেটার
মোট সম্পদ৫২ কোটি টাকা
মাসিক ইনকাম ৫ লক্ষ+
বাৎসরিক আয় ৬৩ লক্ষ টাকা
জন্মস্থান রাজশাহী

শান্ত ঘরোয়া ভাবে বর্তমানে সিলেট স্ট্রাইকার্স এর হয়ে খেলছেন ।জাতীয় দলে অভিষেক হলেও জাতীয় দলের হয়ে এখনো ধারাবাহিকভাবে ভালো পারফরম্যান্স করতে পারেননি। যার কারণে তাকে অনেক সমালোচনা ও ট্রলের শিকার হতে হয়েছে। সম্প্রতি ২০২৩ সালের বিপিএল এ সিলেট স্ট্রাইকারদের হয়ে খেলে দারুন পার্ফোর্মেন্স এর মাধ্যমে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের পুরস্কার জিতেছেন ।

এ সময়ে তিনি ১৫ টি ম্যাচ খেলে ১১৫ এর বেশি স্ট্রাইক রেটে ৫১৬ রান করেছেন । যা বিপিএল ইতিহাসে প্রথম বাংলাদেশী হিসাবে একটি আসরে কোন ব্যাটসম্যানের রেকর্ড সর্বোচ্চ রান। সিলেট স্ট্রাইকার্সকে ফাইনালে তুলতে ব্যাট হাতে বড় ভূমিকা ছিল তার ।এই বিপিএল এ শান্ত নিজেকে যেমন প্রমাণ করেছেন তেমনি দিয়েছেন তাকে নিয়ে করা সমস্ত সমালোচনা এবং ট্রলের যোগ্য জবাব ।

আরো দেখুনঃ 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top